তাজা খবর:

বোচাগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় দুই স্কুলছাত্রী নিহত                    বালিয়াকান্দিতে ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ৩, আহত ৮                    নকলায় পূজাঁ মন্ডব পরিদর্শন করলেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী                    পদ্মা সেতুর রেলসংযোগ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ করেন প্রধানমন্ত্রী                    খুনিদের সঙ্গে জাতীয় ঐক্য জনগণ মানবেনা: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী                    বিএনপি-জামাতের বাংলাদেশে রাজনীতি করার কোন সুযোগ নেই: হানিফ                    ১২বরিশাল সিটির নয়টি কেন্দ্রে পূর্ণভোট গ্রহণ শনিবার                    জঙ্গী ও সন্ত্রাসীদের এই বাংলার মাটিতে স্থান নাই: পলক                    প্রধানমন্ত্রী মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর কাজ পরিদর্শ করবেন রোববার                    ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করতে দেবে না সরকার: এলজিআরডি মন্ত্রী                    
  • বুধবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৮, ৮ কার্তিক ১৪২৫

বাঁশবাগানে ফেলে যাওয়া বৃদ্ধা মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন স্বরাষ্

বাঁশবাগানে ফেলে যাওয়া বৃদ্ধা মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন স্বরাষ্

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার কুচিয়াবাড়ি গ্রামে বাঁশবাগানে ফেলে যাওয়া অসহায় বৃদ্ধা মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব

ঢাকায় বাংলাদেশ কিশোর কিশোরী সম্মেলনে

ঢাকায় বাংলাদেশ কিশোর কিশোরী সম্মেলনে

ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তাজার্তিক সম্মেলন কেন্দ্রে পিকেএসএফ আয়োজিত বাংলাদেশ কিশোর কিশোরী সম্মেলন ২০১৮ অনুষ্ঠিত

কলেজ ছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার দুই আসামী গ্রেপ্তার

কলেজ ছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার দুই আসামী গ্রেপ্তার

পাবনার সাঁথিয়ায় মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হকের মেয়ে ও সরকারী এডওয়ার্ড কলেজের দর্শন বিভাগের ছাত্রী

অর্থাভাবে বিনাচিকিৎসায় জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে স্কুল ছাত্রী ইতি

অর্থাভাবে বিনাচিকিৎসায় জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে স্কুল ছাত্রী ইতি

অর্থাভাবে বিনাচিকিৎসায় জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে বেঁচে থাকার জন্য ছটফট করতে থাকা মেধাবী স্কুল

আশাশুনির এক পরিবারের ৭ জনই রোগাক্রান্ত

এফএনএস (জি.এম. মুজিবুর রহমান; আশাশুনি, সাতক্ষীরা)

12 Oct 2018   07:57:47 PM   Friday BdST
A- A A+ Print this E-mail this
 আশাশুনির এক পরিবারের ৭ জনই রোগাক্রান্ত

পরিবারের সবাই ব্যধিগ্রস্ত, পিতা-মাতা মৃতপথযাত্রী। চিকিৎসা করানোর সক্ষমতা নেই, রোগির সেবা সুশ্রুসা করারও কেউ নেই। চরম দুশ্চিন্তা, করুন আকুতি তাদের ভাষা। আর অন্ধকার ভবিষ্যৎ তাদের হাতছানি দিচ্ছে।
উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের কুঁন্দুড়িয়া গ্রামে চরম হতাশাগ্রস্ততার মধ্যদিয়ে চলছে আঃ হামিদ গাজীর পরিবারের সদস্যরা। মৃত করিম গাজীর পুত্র হামিদ গাজী (৬৫) ৬ মাস আগে থেকে, তার স্ত্রী আমেনা বেগম (৫৫) ২ বছর আগে থেকে রোগাক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন। তখন আমেনাকে একবার অপারেশন করা হয়েছিল। এখন ধরা পড়েছে মাতা ক্যান্সার আক্রান্ত, পিতা অজানা রোগে আক্রান্ত। তবে তার খাদ্যনালী ব্লক হয়ে গেছে বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন। তাদেরকে খুলনা, ঢাকায় চিকিৎসা নেওয়ার প্রয়োজন। দু’জনই শয্যাশায়ী হয়ে আছেন। কেবল শয্যাশায়ী নয়, মরণ পথযাত্রী হয়ে পড়ে আছেন। আত্মীয়-স্বজন, পাড়া প্রতিবেশী সবাই দেখতে আসছে, আর ভাবছে কখন কাকে পরপারে ডাক পড়ে তা নিয়ে। যে কোন সময় তাদের মৃতসমন স্বাগত জানাতে পারে এমনটিই সবার মুখে মুখে ভাসছে। গরীব অসহায় পরিবারের সংসারে তাদের ৫টি সন্তান রয়েছে। বড় ছেলে আব্দুল্লাহ আল মামুন (৩৫) ও মেঝে ছেলে হাফিজুল ইসলাম (২৬) ঢাকায় গার্মেন্টস-এ চাকরী করতো। পিতা-মাতা অসুস্থ হয়ে পড়লে চাকুরী ছেড়ে তারা বাড়িতে চলে আসেন। মাত্র ১০ কাঠা জমিই তাদের একমাত্র সম্বল। ঔষধ কেনার মত সামর্থ এখন তাদের নেই। এমন যখন পরিবারের পরিস্থিতি, ঠিক তখন মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হয়ে দেখা দিয়েছে- দুঃসংবাদ; পরিবারের বাকী ৫ সদস্য সবাই অসুস্থ এমন খবরে। পুত্র হাফিজুল, আব্দুল্লাহ আল মামুন, সাইফুল ইসলাম (২০) এবং কন্যা হালিমা খাতুন (৩২) ও ফাতেমা খাতুন (২৫) সবাই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। মেঝে ছেলে মাত্র ২ মাস আগে বিয়ে করেছেন। মেয়ে দুটি বিয়ে হলেও মাতা-পিতার খেদমত করতে পিত্রালয়ে এসে নিজেরাও অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদেরকে দেখা শুনা করবে এমন কেউ অবশিষ্ট নেই। পাড়া-মহল্লাবাসীর ধারণা তাদের রোগ ছোঁয়াচে, তাই অনেকে যেমন তাদেরকে নিয়ে ভয় পাচ্ছেন, আবার তেমনি পরিবারারের সকলকে ভীত ও মনোবলহারা করে তুলছে।
এমুহুর্তে তাদের পাশে থাকার জন্য মানুষ দরকার। দরকার চিকিৎকদের সুপরামর্শ আর ভীতিকর কিছু নয় এমনকি জানিয়ে মনোবল বৃদ্ধি করা। গোটা পরিবার যেখানে অসুস্থ, সেখানে চিকিৎসা খরচ ও সেবা সুশ্রুৃসা করার জন্য পরিবেশ সৃষ্টি করা। সাথে সাথে লম্বা চিকিৎসার ব্যয় বহুল খরচ যোগাতে দরকার সরকারি, বেসরকারি ও সকল স্তরের মানুষের সহযোগিতা। মাননীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যান, জেলা-উপজেলা প্রশাসনসহ সহৃদয় ব্যক্তিবর্গ তাদের পাশে থাকবেন এমনটি কামনা তাদের। ছলছল চক্ষে পিতা-মাতার একরাশ সহযোগিতার আকুতি না দেখলে বোঝান যাবেনা। সাথে সাথে পরিবারের পুত্র-কন্যারা চরম হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। আপনার সহযোগিতায় পরিবারটি হয়তো নতুন জীবন ফিরে পেতে পারে। তাই সহযোগিতা ও যোগাযোগের জন্য হাফিজুল ইসলামের মোবাইল ০১৭৮৫৭৫৮৪০১ নম্বরে যোগাযোগ করতে পরিবার ও গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে অনুরোধ জানান হয়েছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
 
A- A A+ Print this E-mail this
আপনার পছন্দের এলাকার সংবাদ
পড়তে চাই:

জেলার খবর-এর সর্বশেষ

Fairnews24.com, starting the journey from 2010, one of the most read bangla daily online newspaper worldwide. Fairnews24.com has the highest journalist among all the Bangladeshi newspapers. Fairnews24.com also has news service and providing hourly news to the highest number of online and print edition news media. Daily more then 1, 00,000 readers read Fairnews24.com online news. Fairnews24.com is considered to be the most influencing news service brand of Bangladesh. The online portal of Fairnews24.com (www.fairnews24.com) brings latest bangla news online on the go.
৪৮/১, উত্তর কমলাপুর, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০
ফোন : +৮৮ ০২ ৯৩৩৫৭৬৪
E-mail: info@fns24.com
fnsbangla@gmail.com
Maintained by : fns24.net