তাজা খবর:

ভাঙল ভরসার শেষ বাঁধটিও                    বয়লার বিস্ফোরণ: মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩                    রানা প্লাজা: থমকে আছে বিচার                    হরিণাকুন্ডুতে মাদক ব্যবসায়ীর ৬ মাসের কারাদন্ড                    ঝিনাইদহে শ্রমিকদের মানববন্ধন                    কালীগঞ্জে মোবারক আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে মা সমাবেশ                    কালিগঞ্জের মাদক সম্রাট জহুর গাজীর আত্মসমর্পন                    মাদার তেরেসা এওয়ার্ড পেলেন ডাঃ মোঃ আব্দুল্লাহ আল সাইফ                    উজিরপুরের ধামুরা ডিগ্রি কলেজ গভর্নিং বডি নির্বাচন সম্পন্ন                    রাজবাড়ীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দর্জির মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন                    
  • সোমবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৭, ১০ বৈশাখ ১৪২৪

হাসপাতালে মাসুম আজিজ

হাসপাতালে মাসুম আজিজ

জনপ্রিয় অভিনেতা এবং নাট্য নির্মাতা মাসুম আজিজ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তিনি

এবার টিভি সিরিজে ‘আয়নাবাজি’

এবার টিভি সিরিজে ‘আয়নাবাজি’

গত বছরের সাড়া জাগানো চলচ্চিত্র ‘আয়নাবাজি’ সফলতার ধারাবাহিকতায় এবার নির্মাণ হচ্ছে ‘আয়নাবাজি অরিজিনাল

অবসরের সিদ্ধান্ত ‘ফাইনাল’ ইউনিসের

অবসরের সিদ্ধান্ত ‘ফাইনাল’ ইউনিসের

হয় সংবাদমাধ্যম তাঁকে বুঝতে ভুল করেছিল, কিংবা তিনি ঠিকমতো বোঝাতে পারেননি সংবাদমাধ্যমকে। নইলে

৫ উইকেট আমিরের

৫ উইকেট আমিরের

জ্যামাইকা টেস্টের দ্বিতীয় দিন বৃষ্টিই হয়ে থাকলো শেষ কথা। যতটুকু খেলা হয়েছে তাতে

কক্সবাজার-মহেশখালী নৌ-রুটে কাঁদা মাঠিতে হাবুডুবু খাচ্ছে যাত্রীরা

এফএনএস (আবুল বশর পারভেজ; মহেশখালী, কক্সবাজার)

20 Mar 2017   04:56:53 PM   Monday BdST
A- A A+ Print this E-mail this
 কক্সবাজার-মহেশখালী নৌ-রুটে কাঁদা মাঠিতে হাবুডুবু খাচ্ছে যাত্রীরা

জুনু পাল, বয়স ৫০ এর কাছাকাছি। এই প্রাপ্ত বয়স্ক মহিলাটি হাঁঁটুর উপর কাপড় তুলে পানি ও কাঁদা মাটিতে পার হচ্ছেন লজ্জা শরম ভুলে গিয়ে। অন্যদিকে একই সাথে সবিতা দাশ নামের আরেক মহিলা একহাতে নিজের শিশু সন্তানকে কোলে নিয়ে অপর হাতে হাঁটুতে লজ্জা ঢাকতে ব্যস্ত। এটি কোন প্রতিযোগিতার দৃশ্য নয়। এটি জীবনের তাগিদে বা আপন জনদের নিয়ে প্রকৃতিক সৌর্ন্দয্য উপভোগ করতে মহেশখালী জেটি ঘাট দিয়ে কেউ হয়ত দ্বীপ উপজেলায় যাচ্ছে। আবার কেউ জেলা শহরে যাচ্ছে। মূলত সব মিলিয়ে জীবনের তাগিদে নদী পারাপারের চরম ভোগান্তির দৃশ্য। তবে শুধু জুনু পাল কিংবা সবিতা দাশ নয়, কক্সবাজার-মহেশখালী নৌ-রুটে যাতায়াত করতে গিয়ে যেকোন লোকেরই এমনই দৃশ্য চোখে পড়বে প্রতিনিয়ত। শুধু তাই নয় কক্সবাজার-মহেশখালী নৌ-রুটে বর্তমান সময়ের চরম দুর্ভোগের নাম মহেশখালী জেটিঘাট। এই রুটে যাতায়াতে দুর্ভোগ শুধু নয়, চরম হয়রানিরও শিকার হতে হচ্ছে সাধারণ যাত্রীদের। সম্প্রতি মহেশখালী জেটি ঘাটের এই করুন দৃশ্যের বেশ কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে পুরো দেশজুড়ে সমালোচনার ঝড় উঠে। অনেকে এই ছবিগুলো নিয়ে নানা প্রকার মন্তব্য করতেও দেখা গেছে। শুধু সমালোচনা নয়, মহেশখালী জেটি ঘাটের এই করুন অবস্থা দেখে সাধারণ যাত্রী ও মানুষের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। জেটি’র এই চরম দুর্ভোগ আর করুন অবস্থার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা আর অবহেলাকেই দায়ী করছেন ভুক্তভোগিরা।  এ বিষয়ে মহেশখালীর পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র পূর্ণচন্দ্র দে বলেন-সাংসদ ও পৌর মেয়র এই জেটি দিয়ে যাওয়া-আসা করে। তারা কি এই দুর্দশার চিত্র দেখেন না। তাছাড়া পৌর মেয়র ভোটের সময় এই জেটিতে জাহাজ চালনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। তিনি সেই প্রতিশ্রুতিও ভুলে গেছেন। মহেশখালী জেটি এবং লোকজনের যাতায়াতের এই দুর্দশার নিয়ে স্থানীয় এক সাংবাদিক ফেইসবুকে লিখেছেন বড় নেতাদের বিবেকের কাছে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে এই ছবি দিয়ে বুঝতে পারবেন আপনারা জনকল্যাণে কত কাজ করেছেন। মহেশখালী পৌরসভার আরেক সাবেক মেয়র সরওয়ার আজম লিখেছেন-সালাম দিয়ে শুভবুদ্ধির আশায় আর কত ভোগাবে স্বার্থন্বেষী মহল। প্রবাসী আলহাজ¦ মোঃ ছবর-কাদা মাটি মাখা কাপড় চোপড় ও জুতা যতœ করে রেখে দাও। একদিন কাজে আসবে। সাংবাদিক আবুল বশর লিখেছেন-‘অ-বাজি মহেশখালীর নেতারাতো গলাফাটা বক্তিতা আর কে কত বেশি ফুলের তোড়া দিয়ে তেল মারেত পারে, তাদের কথা বেশি শুনে, মুখস্ত সাফাই গাইেত পারলে তার কথা বেশি বিশ্বাস করেন, মহেশখালীর প্রথম সারির নেতা ও বড় লোকেরা-এ ছবি দেখলে নেতার কত গুন আছে জনকল্যাণে তা তাদের বিবেকের কাছে প্রশ্ন ছুড়ে দিলাম। এমডি নুরুল আলম হেলালী ফেইসবুকে লিখেছেন-দৃশ্য গুলো কোন নাম করা পরিচালকের নাম করা ছবির দৃশ্য নয়, নয় কোন প্রতিযশা শিল্পীর শিল্পকর্ম ৷ ওরা কোন তীর্থ যাত্রী কিংবা ভ্রমণ পিপাসু মানুষ ও নয়৷ ওরা আপনার আমার কারো না কারো মা, বাবা, ভাই, বোন৷ নিত্য দিনের প্রয়োজনে ওরা মহেশখালী থেকে ককসবাজার যাতায়াত করে৷ প্রতিদিন ওদেরকে শাড়ি, লুঙ্গী, প্যান্ট, পায়জামা কিংবা বুক পরিমাণ কাঁদা মাড়িয়ে নৌকায় উঠতে হয়৷ এইচএম ইব্রাহিম লিখেছেন-অসহ্য যন্ত্রনা নিচের ছবিগুলো মহেশখালী উপজেলার একমাত্র ফেরিঘাট “মহেশখালী ঘাটের” মানুষের সীমাহীন দুঃখ দুর্দশায় পরিনত হয়েছে৷ নিত্য প্রয়োজনে মহেশখালীর মানুষকে কক্সবাজার আসা-যাওয়া করতে হয়৷ আমার প্রশ্ন ১.মহেশখালী ফেরিঘাটের অভিভাবক কে? ২. সরকারের কোন দপ্তরের অধীন? ৩. মহেশখালীবাসীর কষ্ট লাগবে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কোন ভূমিকা আছে কি? ৪. জনগন যে ট্যাক্স দেয়, সেগুলো কোথায় যায়? ৫. জনগনের টাকায় ফেরিঘাট মেরামত/ খাল পুনঃ খনন করা যায়না? ৬. ফেরিঘাট মেরামত/ খাল পুনঃ খননে রাজনীতিবিদদের ভূমিকা আছে কি? এদিকে মহেশখালী জেটি ঘাটের এই দুর্দশার বিষয়ে মহেশখালী পৌরসভার সচিব নাজমুল হকের মুঠোফোনে কল করার পর ফোন বন্ধ পাওয়ায় বক্তব্যে নেয়া সম্ভব হয়নি। তবে মহেশখালী পৌরসভার মেয়র আলহাজ¦ মকছুদ মিয়া বলেন-এই জেটি ঘাটের উন্নয়নে পরিকল্পনা রয়েছে তবে এই মুহুর্তে তা করা সম্ভব হচ্ছে না। মহেশখালী জেটির করুন দুর্দশার বিষয় স্বীকার করে ওই আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক বলেন-মহেশখালী জেটি সংলগ্ন এলাকায় জেগে উঠা চর ডেজ্রিং এর সিদ্ধান্ত হয়েছে। শীঘ্রই এর কাজ শুরু করা হবে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
আপনার পছন্দের এলাকার সংবাদ
পড়তে চাই:
Fairnews24.com, starting the journey from 2010, one of the most read bangla daily online newspaper worldwide. Fairnews24.com has the highest journalist among all the Bangladeshi newspapers. Fairnews24.com also has news service and providing hourly news to the highest number of online and print edition news media. Daily more then 1, 00,000 readers read Fairnews24.com online news. Fairnews24.com is considered to be the most influencing news service brand of Bangladesh. The online portal of Fairnews24.com (www.fairnews24.com) brings latest bangla news online on the go.
৪৮/১, উত্তর কমলাপুর, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০
ফোন : +৮৮ ০২ ৯৩৩৫৭৬৪
E-mail: info@fns24.com
fnsbangla@gmail.com
Maintained by : fns24.net