fairnews24 Logo

বঙ্গবন্ধু’র সোনার বাংলা বাস্তবায়নে আগস্টই হোক আমাদের শপথ

28 Aug 2018   07:40:41 PM   Tuesday
 বঙ্গবন্ধু’র সোনার বাংলা বাস্তবায়নে আগস্টই হোক আমাদের শপথ

এফএনএস : ১৯৭১ সালে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ এর ভাষণ এবং ২৫ মার্চ রাতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চুড়ান্ত ভাবে স্বাধীনতার ডাক দেন। জাতির জনকের আহবানে আমরা মুক্তিযোদ্ধে অংশগ্রহন করি। ৩০ লক্ষ শহীদের রক্ত ও ২ লক্ষ মা বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে আজকের এই লাল-সবুজের পতাকা ও স্বাধীনতা। পরাজয় ভেবে মুক্তিযোদ্ধের  সময় পাক হানাদার বাহিনী দেশটিকে ধংশস্তুপে পরিণত করে। এর পরও জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সরকার ধংশস্তুপ থেকে জাতিকে ধীরে ধীরে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল ঠিক তখনই পাকিস্তানি দোসর জামাত-শিবির, আল শামস এবং কতিপয় বিপদগামী সৈনিকরা জাতির জনক ও তার পরিবারসহ শিশু রাসেলকে নির্মমভাবে হত্যা করে। এবং জাতিকে দিশেহারা করে তোলে, তখন বাঙ্গালি হতবিহবল ও নেতৃত্বশূন্য হয়ে পরে। এর কিছু দিন পরেই ৩ নভেম্বর বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে যাদের নেতৃত্বে দেশ স্বাধীন হয়। যেমন সৈয়দ নজরুল ইসলাম, শহীদ বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমদ, ক্যাপ্টেন মনসুর আলী এবং এ এইচ এম কামরুজ্জামান সাহেবদের জেলখানায় নির্মমভাবে হত্যা করে খুনি চক্ররা। আবার ২০০৪ সালে ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, দেশরতœ শেখ হাসিনাকে ঐ কুচক্রি মহল হত্যা করার জন্য গ্রেনেড হামলা চালায়। সভায় নারী নেত্রী আই ভি রহমানসহ ২৪ জন নেতাকর্মী নিহত হয়।
এ আগস্ট মাসে সিলেট সিটি করর্পোরেশন নির্বাচনে কুট কৌশলের মাধ্যমে আ’লীগ প্রার্থী’কে  পরাজিত করে। এ মাসে কোটা সংস্কারের নামে কলেজ বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাজপথে নেমে আসে এবং আন্দোলনে জামাত-শিবির, বিএনপি গংদের প্ররোচনায় রাস্তায় যানবাহন ভাংচুর করে। এ মাসে ঢাকার রমিজ উদ্দীন স্কুল এন্ড কলেজের ২ জন কোমল মতি শিক্ষর্থীর মৃত্যুতে রাজপথে আবার নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে। যদিও তাদের দাবী যৌক্তিক কিন্তু এখানেও কোটা আন্দোলনের চক্রটি তাদের সাথে মিশে জনজীবনে অশান্তি ঘটায়। এমনকি তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে ধানমন্ডি আ’লীগ কার্যালয়ে হামলা ও ভাংচুর করে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ সড়কের ৯টি দাবী আন্তরিকতার সাথে মেনে নিয়ে একে একে তা বাস্তবে পরিনত করার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। ২ টি পরিবারকে আর্থিক ২০ লাখ টাকা করে ৪০ লক্ষ টাকার চেক হস্তান্তর ও কলেজকে ৫ টি বাস প্রধান করেন এবং নিরাপদ সড়ক আইন ২০১৮ মন্ত্রীসভায় শাস্তির বিধান রেখে আইন পাশ করেন।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সচিবদের নিয়ে কোটা সংস্কারের যে কমিটি গঠন করেছিলেন তারাও কোটা ওঠিয়ে নেওয়ার পক্ষে মত দেন এবং মুক্তিযোদ্ধার কোটা নিয়ে আদালতের পরামর্শ চেয়েছেন। আমরা মহান মুক্তিযোদ্ধে অংশগ্রহন করি তখন জীবন বাজি রেখেই যুদ্ধ করেছি। কিন্তু স্বাধীনতার ৪৭ বছর পর আমরা জীবিত মুক্তিযোদ্ধারা কি ভাবতে পেরেছি! স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি বার বার  দেশটাকে অস্থিতিশীল করার জন্য জ¦ালাও পোড়াও রাজনীতিসহ জঙ্গী-সন্ত্রাস কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন। এমতাবস্থায় মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম এবং মুক্তিযোদ্ধের পক্ষের রাজনৈতিক দল ঐক্যবদ্ধ হয়ে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিকে প্রতিরোধ ও প্রতিহত করতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে তা অব্যাহত রাখার জন্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে অপশক্তিকে চিরতরে নির্মূল করতে হবে। আগস্ট আসে, আগস্ট চলে যায়, বাঙ্গালিরা কাঁদে, বাঙ্গালিদের আর কাঁন্না নয়, বঙ্গবন্ধু’র সোনার বাংলা বাস্তবায়নের লক্ষে দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, সন্ত্রাস ও মাদক থেকে যুব সমাজকে রক্ষার জন্য ৭১ ন্যায় আবারো গর্জে উঠতে হবে। বঙ্গবন্ধু’র সোনার বাংলা বাস্তবায়ন করবোই, এই হোক আগস্টের শপথ। -- জয় বাংলা-জয় বঙ্গবন্ধু ।

 

মোঃ বজলুর রশীদ মোল্যা
যুদ্ধকালীন গ্রুপ কমান্ডার এবং নির্বাচিত উপজেলা  মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার
কাপাসিয়া, গাজীপুর

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কপিরাইট © 2019-02-19 এফএনএস২৪.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত।